সহকর্মীদের সাথে ভালো সম্পর্ক সাফল্যের অন্যতম কারণ

সহকর্মীদের সাথে সুসম্পর্ক সাফল্যের চাবিকাঠি কেনো? 

A good relationship with colleagues-

তো বন্ধুরা আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে। যারা মানুষের সাথে খারাপ ব্যবহার করে থাকে। এর ফলে আপনার যে কোন বিজনেস বা পারিবারিক ভাবে অনেক সময় সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। আজকে আমি আপনাদেরকে বলবো। যে কিভাবে আপনারা আপনাদের ফ্যামিলির মতো করে, আপনার বিজনেসের পার্টনারের সাথে ভালো ব্যবহার করে। আপনার বিজনেসে বা ব্যবসায় সফলতা অর্জন করবেন। তবে এর জন্য আপনাকে কোন রকম পরিশ্রম করার প্রয়োজন নেই। কেউ যদি আপনাকে অফিসে কোনো প্রশ্ন করে। আপনি সেটাকে সুন্দর করে উত্তর দিন। তাছাড়া আপনি তাদের সাথে ভদ্রভাবে কথা বলুন। তবে অনেকেই আছে আমাদের সমাজে যারা বাড়ির ফ্যামিলির মানুষদের সাথে যেভাবে কথা বলে।

 

Business Partner

সে ভাবেই অনেক সময় দুর্ব্যবহার করে থাকে। এর ফলে মানুষের সাথে কমিউনিকেশনে ব্যাঘাত ঘটে থাকে। এভাবে আপনি যদি সব সময় করতে থাকেন। একপর্যায়ে আপনাকে কেউ ভালো চোখে দেখবে না। সবাই ভাববে আপনি খারাপ একটি লোক। আজকে আমি আপনাদের কে সম্পন্ন আর্টিকেল পড়ার জন্য অনুরোধ করবো। যার কারণে আপনি এই সমস্যা থেকে একদম সহজেই সবার চোখের ভালো একজন মানুষ হতে পারবেন। এক্ষেত্রে আপনার যে কোন বিজনেস আপনাকে নিতে পারে একদম সফলতা। তাই আমি আপনাদেরকে খুব সুন্দর করে বলার চেষ্টা করব।

আরো পড়ুন…

 

সফলতা পাওয়া কিছু গুরুতপূর্ণ স্টেপ কী?

তবে এটা মনে রাখবেন। যে আপনার ফ্যামিলির সাথে আপনি যেমনটা সারা জীবনের একটি সম্পর্ক রয়েছে। ঠিক এভাবে আপনার অফিসের পাটনদে্র সাথে, আপনার টেম্পোরারি হোক বা কিছু বছরের জন্য হলেও তাদের সাথে ভালো সম্পর্ক থাকা উচিত। এটা আপনি বজায় রেখে অবশ্যই চেষ্টা করবেন। আমি বলবো তাদের সাথে সুসম্পর্ক গড়ে তুলুন। এমনকি ভালো আচরণ ও তাদের মত হয়ে কথা বলুন। আপনি যদি এটা করতে পারেন। তাহলে আপনার লাইফে খুব দ্রুত সফলতা আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন। এমনকি তাদের সাথে খুব মজবুত একটা ভালোবাসার সম্পর্ক হবে। অফিসে আপনি যদি অনেকের থেকে বড় অফিসার হয়ে থাকেন। অবশ্যই তাদেরকে কখনো নিচু চোখে দেখবেন না। Good relationship with friends.

এতে করে আপনার জন্য তাদের মন খারাপ হতে পারে। যেটা কেউ কখনো চায় না। তারা চায় এই রকম ব্যবহার তাদের সম্মান জনক ব্যক্তিরা তাদের সাথে না করুন।  অবশ্যই পারিবারিক ভাবে সম্পর্ক গড়ে তুলুন। এমনকি মাঝে মাঝে ফ্যামিলি সম্বন্ধে জানান। যে তাদের ফ্যামিলির সবাই কেমন আছে।  এমনকি আপনার কাছে  তাদেরকেও বলার সুযোগ করে দিন। এটি সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন। এটি আপনার জন্য খুবই লাভজনক তবে চলুন জেনে আসি। যে কিভাবে আপনি একটু উপায় মাধ্যমে তাদের সাথে সুসম্পর্ক করে তুলতে পারবেন।

 

প্রথমেইন নিজের সম্পর্কে জানতে হবেঃ

সবচেয়ে ইম্পরট্যান্ট বা প্রয়োজনীয়। যে বিষয়টা সেটা হলে আগে নিজে জানুন। যেটা আপনি অন্যকে শেখাতে যাবে না। কেউ যদি আপনাকে প্রশ্ন করে কোন একটা বিষয়। তখন অবশ্যই নিজে 100% ঠিক না জেনে থাকেন। কোন প্রশ্নের আনসার দিবেন না। এতে করে সে ভাববে আপনি জেনেও আপনি তাকে হয়তো বা মিথ্যা কথা বলেছেন। আর এই তো অবশ্যই খেয়াল করবেন যে আপনি একটা মানুষের সাথে কথা বলার সময় অল্পতেই তাদের সাথে মিশে যাচ্ছেন কিনা। যদি তা না হয় তাহলে অবশ্যই আপনি চেষ্টা করুন। যে খুব কম সময়ের ভিতর একটা মানুষের মন জয় করার জন্য।

তাদের সাথে মিশে যাওয়ার জন্য। তবে হ্যাঁ আপনি এটা কখনো করবে না। যখন কেউ আপনার জানা কিছুকে ভুল ব্যাখ্যা দেও্যার মাঝে সাথে সাথে হ্যাঁ হ্যাঁ বলা। অকারণে বিরোধিতা করতে যাবে না। যার ফলে আপনার প্রতি বিশ্বাস হারাতে পারে। নিজে নিজেই চেষ্টা করুন। কিভাবে আপনি তাদের সাথে সহজে মিশতে পারেন এই সম্পর্কে একবার প্র্যাকটিস করুন। যেটা আপনাকে তখনই সহায়তা করবে। যে আপনি কারো সাথে মিশতে পারেন কিনা আপনি নিজেই বুঝতে পারবেন। 

 

Good relationship with friends – তবে একটা কথা বলতে গেলে। আপনি একটা বিষয় যদি যথেষ্ট জ্ঞান অর্জন করেন। তাহলে কিন্তু সেই বিষয়টি তে আপনি কখনোই ঝামেলায় পড়বেন না। তাই কোন কিছু জানার আগে ভেবে নেবেন। সেটা কি পরিপূর্ণ ভাবে আপনার জানা প্রয়োজন।আপনার এখানে কোন প্রকার ঝামেলা জড়াতে হবে না। তবে প্রথমেই বলছি না আপনি যদি একটা মানুষের সাথে সুসম্পর্ক করে নিতে পারেন। তাহলে এখানে কাজের মানসম্মত আরো বাড়ানো সম্ভব। এছাড়াও আপনি কাউকে হেল্প করা বা কারো সাহায্য করা। এটা আপনার একটা যেটা সবাই পারেনা। এমনকি সবার পক্ষে সম্ভব না। তাই বলবো আপনি যদি এইসব অসম্ভব কে সম্ভব করে দেখাতে পারেন। এটাই ছিল একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

 

সম্পর্কে ঝামেলা তৈরি না করাঃ

এরপর আমরা সম্পর্কে কোন বিষয়ে জানব চাকরি ক্ষেত্রে যেমন সবার সাথে ভালো একটা সম্পর্ক গড়ে তোলা খুবি রিপোর্ট একটা জিনিস আপনাকে অবশ্যই আরেকটা বিয়ে করতে হবে সেটা হল আপনার এই সম্পর্কটা কতটা যথাযথ। হ্যাঁ আমি সম্পর্ক রাখতে বলছি কিন্তু এই না যে আপনি এতটাই গভীরে চলে যাবেন যেটা আপনাকে মানুষ সন্দেহ করা শুরু করবে অবশ্যই আপনি যতটুকু পারেন আপনার দেলেতে যে সম্পর্কটা রয়েছে সেটা অবশ্যই আপনি চেষ্টা করুন। যেটা অফিসের সবাই আপনাকে ভালো চোখে দেখবে। তবে আপনি এইটা অবশ্যই জানবেন। যে একটি অফিসে পুরুষ বা মহিলা উভয়ই কাজ করে থাকে। সেক্ষেত্রে আপনার হয়তো বা অভিব্যক্তিতে কারো সাথে একটু বেশি গভীরতা তখন কি হবে। অবশ্যই আপনি কেমাথায় রাখতে হবে। যে এখানে আপনি অফিসে আসছেন কাজের জন্য। তবে এটা ছিল মূল সূত্র যেটা আপনাকে অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে।

 

সহকর্মীদের সাথে চ্যালেঞ্জ করুনঃ

এরপরে আমরা কথা বলবো প্রতিযোগিতা আপনার অফিসে যারা ডিউটিতে আছেন। তারা চাইলে আপনার থেকে আর বড় হতে আপনাকে একটা দিতে দিতে আপনি তাদের সাথে অবশ্যই আপনি পারবেন যদি আপনি তাদের থেকে আরও বেশি চেষ্টা করেন এর জন্য অবশ্যই আপনাকে চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে তবে এই না যে আপনি তাদের সাথে সম্পর্কে কোন সমস্যা কোন সমাধান নয় আপনাকে আপনি কি সমাধান করতে হবে আপনার মাধ্যমে তবে কিন্তু আপনার অফিসের উন্নতি সাধন করতে পারবেন। মনে রাখবেন কলিকদের মধ্যে সবসময় কোন না কোন প্রতিযোগিতা থেকে যাবে এতে যারা অলস ব্যক্তি রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে বিষয়টা যথার্থ প্রভাব পড়বে চ্যালেঞ্জ করতে পারেন আপনার সহকর্মীদের সাথে ।

এইটা বলার কারণ হচ্ছে আপনি কাউকে চ্যালেঞ্জ করলে সে ক্ষেত্রে আপনি এবং উভয় ব্যক্তিদের জন্য যথেষ্ট প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবেন এরপর দুজনেরই জ্ঞান বৃদ্ধি পাবে এবং কাজের দক্ষতা আগের থেকে আরও অনেকে ইমপ্রুভমেন্ট এমনকি উন্নতি লাভ করবে এতে করে আপনি তার থেকে চলে যেতে পারেন তবে আপনি যদি কাজ করতে চান এই ক্ষেত্রে আপনার যতটুকু ততটুকু তাকে হারাতে হবে এর ফলে আপনার আশেপাশে কাউকে যেতে হবে। যে আপনার থেকেও উপরে উঠে গেছে। 

 

যথেষ্ট অন্য জনকে সহযোগীতার হাত বাড়ানোঃ

আপনি কি জানেন অফিসে আপনি যদি কাউকে সহযোগিতা করেন কাল যদি অফিস টাইমে কোন এক কারণে পারিবারিক কামলীলা যাবে হয়তোবা তাড়াতাড়ি বাইরে যেতে হতে পারে সেই মুহূর্তে তার কাছে জমা দিতে পারেনি তার চেষ্টা করুন যে আপনি এখন বাড়িতে যেতে পারেন। এভাবে সহযোগিতার সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলে আপনি তার কাছে খুব প্রিয় হয়ে উঠতে পারবেন এতে করে সে পরবর্তীতে আপনার কোন একটা বিপদে ফেলবে তবে এইটা আপনি কখনো ভুলবেন না আপনার হতে পারে আমার এখান থেকে খুবই প্রয়োজন। এটি অন্যের কাজে নিজেকে ব্যবহার করলে আপনি ভবিষ্যতে সুরক্ষিত থাকতে পারবেন এতে করে আপনার অফিসে আপনার দাম এমনকি রেপেটিশন উচ্চ লেভেলে চলে যাবে সবাই আপনাকে সূর্যকে দেখবে।

Good relationship with friends

 

অন্যের নামে সমালোচনা বা যড়যন্ত্র থেকে বিরত থাকাঃ

সবশেষে আমি বলবো কাউকে নিয়ে কখনো ষড়যন্ত্র করবেন না এতে করে আপনার বিপদ আপনি নিজেই ডেকে আনবেন অফিসে বসে বসে কখনো কারো কাছে কারো পরনিন্দা করবেন না আপনার সাথে যে যেরকম ব্যবহার করুক না কেন সেইটা আপনার মনে মনে থাকবে কিন্তু সেটা অন্য কাউকে শেয়ার করা যাবে না আপনার কাছে যদি অন্য আপনার কাছে যদি অন্য কেউ কারো পড়নে রাশিয়ার করতাসে সেটা আপনি সোনা থেকে বিরত থাকুন কেননা তখন আপনি যদি তাকে উৎসাহিত দেন আরো বেশি করে বলবে এভাবেই চলতে থাকবে। তাই আমি বলব সম্পূর্ণ সম্পূর্ণ ভাবে এই টপিকটা চেঞ্জ করে আপনি অন্য কোন একটা কথা যেটা সেটা সম্পর্কে আপনাকে এরকম কথা বলবে না।

মনে রাখবেন মানুষেরই হয় এমনকি অফিসে যারা কাজ করে তাদের বিভিন্ন সময় বিভিন্ন রকমের ভুলত্রুটি হতে পারে। তবে আপনি এই না যে তার থেকে বেশি জানেন দেখে আপনি একটু বেশি অ্যাটিটিউড দেখাবেন ভাব দেখাবেন সময় নষ্ট । আপনি চাইলে সে ভুলটাকে ধরিয়ে দিতে পারেন। এছাড়াও সবচেয়ে মেইন কথা হলো সেই ভুলটা তাহলে সেই সম্পর্কে বলতে পারেন এতে কোন প্রকার সম্পর্কের সৃষ্টি করে অবশ্যই আপনার সব মেয়েদের সম্মান করতে শিখুন এতে করে আপনার কোন একটা বিষয় অন্যকে বলার আগে অন্তত একবার ভাববে এমন কি আপনাকে তারা উল্টা সমান করার চেষ্টা করবে তাই সবার প্রতি খুবই প্রয়োজন কারণ আপনার উপর নির্ভর করে সফলতা এই ছিল আজকের পর থেকে আর ভালো কিছু লেখার চেষ্টা করবো।

Total
13
Shares
Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

How To Success On YouTube – ইউটিউবে কম সময়ের মধ্যে সফলতা সম্ভব

Related Posts
GP Super Fnf

ফোনের এই ছোট্ট কাজটি জানলে আপনি বড় ঝামেলা হতে বাঁচবেন এবং টাকা সেভ হবে

GP Super FnF – আপনি যদি একজন জিপি কাস্টমার হয়ে থাকেন। এছাড়াও আপনি প্রতিদিন কারো না কারো সাথে …
বিস্তারিত
Total
13
Share