iPhone 12 Pro Max Review 2020 Bangla – আইফোনের নতুন ৪ টি মডেলে কি কি থাকছে ২ প্রাইস কত?

iPhone 12 Pro Max Review 2020 Bangla – আইফোনের নতুন ৪ টি মডেলে কি কি থাকছে ২ প্রাইস কত?

হাই বন্ধুরা আপনার কি জানেন যে এ বছরের শেষের দিকে আইফোন 12 লঞ্চ হয়ে গিয়েছে আমরা কিন্তু সবাই জানি আইফোন কি এমনকি আইফোন প্রতিবছর একটা না একটা ফোন লঞ্চ করেই যাচ্ছে তবে এর মেইন প্রতিষ্ঠা হল স্টিভ জবস এমনকি এর মেইনলি ব্র্যান্ড অ্যাপল অ্যাপল প্রতিবছর নতুন নতুন করে থাকে তবে গত বছর আমরা দেখতে পেরেছি আইফোন 11 এমনকি তার আগের বছর বের করেছে আইফোন টেন এভাবেই তাদের আইফোন প্রতিবছর একটা একটা করে লঞ্চ হতে যাচ্ছে তবে এ বছরের বিভিন্ন আমার কাছে এতো ভালো লেগেছে যেটা আমি বলে বুঝাতে পারব না।

 

New iPhone 12 Pro Max Review 2020

আইফোন প্রত্যেক ফোনের রাজা সেটা আমরা সবাই জানি তবে এই আইফোন ভারতে কি কি থাকছে গুডনিউজ রয়েছে আমরা প্রত্যেকটা গুডনিউজ সম্বন্ধে আপনাদেরকে জানানোর চেষ্টা করব গতবছর যেটা ছিল সেটা আপনারা সবাই জেনে গেছে তাই নতুন করে আর বলার কিছু নেই এ বছরে আয় আমার কতগুলো মডেল থাকবে সেটা আমি আপনাদেরকে আপনি চমৎকার একটা ফিচার পেজ আছে তবে তার আগে বলে নিচ্ছি আইফোনের 5 টাকা রয়েছে।

যেগুলোর মধ্যে ব্ল্যাক গ্রীন ব্লু প্রিন্ট এমনকি আরেকটি কালার রয়েছে কালার গুলো সবচেয়ে সবচেয়ে আমার কাছে জোস লাগছে মেয়েদের জন্য একটি যেকোনো মেয়ে দেখে ক্রাশ খেয়ে যাবে তবে আমি ছেলেদের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করব ব্ল্যাক কালার ব্লু কালার গর্জিয়াস লাগে এ রয়েছে মেটাল ব্যাক পার্ট এমনকি যেটার মধ্যে রয়েছে 6 ফুট 1 ইঞ্চি ডিসপ্লে মাত্র 5 ফুট 4 ইঞ্চি ডিসপ্লে সাইজ করা হয়েছে গতবছর যেমনি খুব মাতামাতি হয়েছিল অনলাইনে ঠিক একই ভাবে এবার অনেক বেশি মাতামাতি হচ্ছে তবে গত বছর থেকে এবার কি কি বেশি থাকে আমরা সেটা নিয়ে কথা বলবো।

 

আইফোন ১২ মিনি

 তবে খুশির সংবাদ হলো এবছর আইফোন তাদের ফোনে পাবজি নিয়ে এসেছে অ্যাপল কিন্তু বর্তমানে টেকনোলজি নিয়ে অনেক বেশি কাজ করছে আমার কি ভালো ভালো কাজ দেখতে পাচ্ছি আমরা যেগুলো আমরা অন্য কোন ফোনে দেখতে পারিনা একদম হাই রেঞ্জ প্রাইস। আইফোন এই ফোনটির নাম দিয়েছে  ফাইভ-জি  গট রিয়েল। বর্তমানে এই ফোনটি মানে ফাইভ জি সাপোর্টেড ফোনটি বর্তমানে আমেরিকার তেই সীমাবদ্ধ থাকবে তারপর ধীরে ধীরে সম্পূর্ণ গ্লোবালি লঞ্চ করবে তখন আমরা আমাদের দেশেও আইফোন কিনতে পারব নেটওয়ার্কের সাপোর্টেড তবে আরেকটা কথা আইফোন তাদের ফোনের বেজেল আগের থেকে অনেক বেশী ছোট করে ফেলেছে যেটা দেখতে এখন আরো বেশি চমৎকার লাগে যেখানে 11% থিনার 15% স্মালার এমনকি 16 পার্সেন্ট লাইটার আমরা দেখতে পারবো। 

 

iPhone 12 Pro Max Review And Unboxing

এবার ডিসপ্লে তে সুপার এক্সডিআর রেটিনা দেখতে পাওয়া যাবে যেগুলো আমাদের জন্য খুব ইম্পর্টেন্ট একটি পার্ট। তবে এটি জানলে খুশি হবেন গতবছর আইফোনের 11 থেকে এবার আইফোন 12 ডিসপ্লে টা আরো বেশি যেমন গর্জিয়াস হতে চলেছে যেখানে আরো বেশি মানে চারগুণ বেটার পারফরম্যান্স দেওয়া হয়েছে গতবছরের ব্যাটারি তুলনায় এবছর এর ব্যাটারি আরো বেশি সময় টিকে থাকবে কারন যে নেটওয়ার্কের সেটার উপরে যেটা একদম অস্থির লাগবে সেটা বিভিন্ন জায়গায় বিভিন্ন রকমের নেটওয়ার্ক 4g কভারেজ এলাকায় থাকেন তাহলে সেখানে যাবে অটোমেটিকলি দেখাবে এমন কিছু করবে একইভাবে আপনার যদি নেটওয়ার্ক না থাকে তাহলে আপনার এলটিডি অথবা টুজি নেটওয়ার্ক চলে আসবে আবার যদি আপনার এলাকায় অটোমেটিকলি ফোরজি থাকে।

তাহলে সেই ফোরজি কভারেজ এলাকায় সেখানে 4 যীশু করবে আবার আপনি যদি সিটি করপোরেশন এলাকায় আপনি যান তাহলে সেখানে কিন্তু সিটি করপোরেশন এলাকায় ফাইসু করার সম্ভাবনা রয়েছে তবে আমাদের দেশে এখন পর্যন্ত 5g নেটওয়ার্ক নট অ্যাভেলেবল তাই আমরা কিন্তু ফাজিল আশা করতে পারি না আমরা শুধুমাত্র ফুল 4g পেতে পারি তবে এটা আমাদের জন্য দুর্ভাগ্য যে ফাইভ জি ফোন দিয়ে আমরা এখন কাজে লাগাতে পারবো না তাই আমি আপনাদেরকে বলবো যেটা ভাবছি এখন পড়তে আমেরিকাতেই রয়েছে সেটা আমেরিকার বর্তমান অবস্থা তাতে আমাদের বাংলাদেশে এসে পৌঁছতে দেরি হলো আমার এখন কোনো আফসোস পারি।

 

আইফোন ১২

তবে একটা কথা মনে রাখবেন এবছরের আইফোন পারো মিনি প্র এমনকি সহ অন্যান্য ফোনের তুলনায় 50% ফাস্টার থাকবে মানে দ্রুত কাজ করবে। এবছরের আইফোন ভারতে এমন এক টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে যার ফলে আপনার লো লাইট এ আপনি ছবি তুলতে গেলে এত সুন্দর ছবি উঠবে যেটা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না।

তবে এ বছরের ক্যামেরা এতটা ইমপ্রুভমেন্ট পেয়েছে যেটা আমরা অবাক হয়ে যাচ্ছি আপনি গতবছরের আইফোন 11 তে যে পরিমাণে ছবিটা তুলতে পারতেন তার থেকে আরও বেশি মানে দ্বিগুণ ভালো ছবি ওঠা সম্ভব এখানে রয়েছে যেটা আমাদের জন্য খুবই বেস্ট একটা ফিচার এই ফিচারটা জন্যই আমরা কিন্তু বেশিরভাগই ফোনটা কিনে থাকি অনেক সময় আমরা খেয়াল করি আমরা সবসময় ইনস্টাগ্রাম ফেসবুকে ছবি আপলোড করার জন্য আমরা ফোন কিনব।

 

তখন আমরা এই ফোনটা নিতে পারি এটা একদম লিলুয়া তে এমন কি সম্পূর্ণভাবে অস্থির অস্থির ছবি দিতে সক্ষম হবে কোন অ্যাপ ব্যবহার করে আপনার ছবিটাকে করার প্রয়োজন হবে না যেখানে ক্যামেরার মধ্যে এত সুন্দর সুন্দর ফিচার রয়েছে রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে আপনি কিভাবে ছবি এডিট করে নিতে পারবেন কোন প্রকারের দেওয়া হয়েছে সেগুলি আপনার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ এমনকি খুবই বেস্ট হবে। কিন্তু আরেকটা বিষয় যেখানে আমরা সবাই একটু হা হা করে তাকিয়ে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে কারণ এ বছর আর বোনের সাথে কোন প্রকার ইয়ারফোন এমনকি চার্জার থাকবে না তবে এটা কিভাবে চার্জ হবে এই বিষয় নিয়ে এখন আবার কথা বলব।

 

আইফোন ১২ প্রো

তাই এ বছরের আইফোন 12 কভারটা বা বক্স টা এতটাই ছোট করা হয়েছে সেটা দেখতে একদম কিউট লাগতেছে তবে এর সাথে একটি কেবল থাকবে যেখানে আপনি বিভিন্ন জায়গায় কানেকশন করতে পারবেন যে কেবল টা অনেক সময় প্রয়োজন হয় আমাদের এমনকি এই অরজিনাল কেবল টা নরমাল দোকানে পাওয়া যায় না তাই এটা দিয়ে দেওয়া হয়েছে যেটা আমাদের জন্য খুবই হেল্প হবে তবে এটা কিভাবে চার্জ হবে এখন আমরা সেটা নিয়ে কথা বলি।।

এবছর আপনি চার্জ দিতে পারবেন ওয়ারলেস সিস্টেমটা অবশ্যই অবশ্যই আইফোন সেই সিস্টেমটা করে দিয়েছে তারপর আমরা কথা বলবো আইফোন টুয়েলভ প্রো ম্যাক্স নিয়ে। এবার শুধুমাত্র আইফোন প্র যেটা রয়েছে। iPhone 12 Pro Max Review.

 

সেটার ডিসপ্লে সাইজ হচ্ছে 6.16 এবং আইফোন 12 প্র মেক্স ডিসপ্লে হচ্ছে 6 ফুট 7 ইঞ্চি এমনকি প্রত্যেকটা মডেল অনুযায়ী এছাড়াও রয়েছে করতে পারি আগের আর্টিকেলগুলো খেয়াল করলে। আইফোন 12 প্র মেক্স এর যে কালারটা থাকবে সেটা চার্কলার আপনি পেয়ে যাবেন সেখানে রয়েছে ব্লু সিলভার গোল্ড এমনকি আরেকটি কালার। আমরা আগেই বলেছি এ বছরের প্রত্যেকটা আইফোন নেই কিন্তু সুপার রেটিনা ডিয়ার দিয়ে দিয়েছে।

যার কারণে আমাদের জন্য খুবই ভালো একটি টেকনোলজি। তবে আইফোন 12 মিনি আইফোন 12 আইফোন 12 প্র আইফোন 12 প্র মেক্স এদের সম্পন্ন টেকনোলজি এমনকি সবকিছু সেম টু সেম শুধুমাত্র ডিসপ্লে এমনকি ক্যামেরা বাদে তবে সবগুলো ক্যামেরা সিস্টেম রয়েছে কিন্তু আইফোন প্রো ম্যাক্স এর ক্যামেরা টা একটু ভিন্ন কারণে আরেকটু উন্নত করে দিয়েছে যেটা আমি এখন আপনাদেরকে বলছি যে কত পিক্সেল আমার কি কেমন ভিডিও রেকর্ড করা যেতে পারে ছবি তোলা যেতে পারে।

 

আইফোন ১২ প্রো মেক্স

আইফোন 12 প্র মেক্স এ থাকছে তিনটি করে ক্যামেরা যেখানে প্রত্যেকটি ক্যামেরায় থাকছে 12 মেগাপিক্সেল করে আমরা জানি যে 12 মেগাপিক্সেল এর আইফোন আর 200 মেগাপিক্সেল এর অন্যান্য পণ্যের তুলনায় আইফোন সবচেয়ে বেটার হবে কারণ আইফোনের ক্যামেরা পিক্সেল শুনতে কম হলো এটার ফলাফল অবশ্যই আপনি করতে পারবেন কারণগুলোতে আপনি দেখতে পারবেন 100 দেড়শ দুইশ করে মেগাপিক্সেলের করে দেয়।

কিন্তু এখানে কি সত্যিই তারা 100 200 300 মেগাপিক্সেল পর্যন্ত যারা ভিডিও রেকর্ড দেয় তাদেরকে আসলে কি হয় সেটা অসম্ভব আর সেটা হলো সেটা দেখতে কিন্তু অতটা না যতটা আইফোনের দিকে আমরা দেখতে পারি আইফোন কিন্তু কখনো ভুয়া নিউজ দেয় না আইফোন চায় তাদের কাস্টমারের সাথে ভালো একটা কমিউনিকেশন করার জন্য কারণ যারা একবার ব্যবহার করেছে তারা প্রত্যেক দিন ব্যবহার করে প্রতিশ্রুতি নিয়ে যারা কাজ করে।

 

এটির দাম দেখে মাথা ঘুরে যেতে পারে

আইফোনের প্রায় সব মডেলের ফোনে থাকতে টেলি ফটো ক্যামেরা যেখানে অনেক বেটার ছবি আপনারা পাবেন ছবি ক্যাপচার করলে দেখতে একদম জলের মত লাগবে যেটা দেবে। তবেই ফোনগুলোতে অপটিক্যাল জুম ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে যেখানে আপনি জুম করে ছবি তুলল সেই ছবি কখনোই পারবে না যেটা আমরা ডিএসএলআর ক্ষেত্রে দেখতে পারি অবশ্যই আমরা বলতে পারি।

দুই মডেলের হোয়াইট অ্যাংগেল ক্যামেরা আগের থেকে অনেক বেশি বড় করা হয়েছে এমনকি দেখতে খুবই জোস লাগছে। অ্যাপলের এই আইফোন 12 মডেলের ক্যামেরা দিয়ে এত সুন্দর ছবি ক্যাপচার করা যাবে যেটা কল্পনার জগতে আপনাকে নিয়ে যেতে পারে সম্ভব না তবে এমনকি আগে তারা অবশ্যই ক্যামেরার মধ্যে এত পরিমাণে দিয়েছে তাদের ক্যামেরাটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ ছিল মনে হয় এবার আমরা পরিশেষে দামের বিষয়ে আরো।

 

কারণ এই নামটা নিয়ে অনেকেই বেশি ঘন ঘন মাতামাতি করে কারণ তারা যদি আপনার বাজেটের না হয় তাহলে কিন্তু আইফোন আপনি কিনতে পারবেন না যদি আপনার কিনার যোগ্যতা তখনই থাকবে তখন আপনার প্রয়োজনীয় টাকার থেকে যেন বেশি নাচায় তাই বাংলাদেশেই আইফোনটি আপনি কত টাকায় পাচ্ছেন সেটা নিয়ে আজকে আমি আপনাদেরকে বিস্তারিত বলবো তবে প্রত্যেকটা মডেলের প্রত্যেক রকম তবে প্রত্যেকটা মডেলের প্রাইস আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি।

 

আইফোন ১২ এর কোন মডেলের কত দাম

আইফোন 12 মিনিট এটার দাম শুরু করা হয়েছে 699 ডলার থেকে অপরদিকে আইফোন 12 এটার দাম শুরু করা হয়েছে 799 ডলার হতে অপরদিকে আইফোন 12 প্র এটার দাম করা হয়েছে 999 এমনকি আইফোন 5 প্রো ম্যাক্স এর দাম 1000 ডলারের ওপরে যেটা 1999 অর্থাৎ 1000 99 ডলার আপনি কিনতে পারবেন।  তবে এটা ছিল আমেরিকান প্রাইস আপনি বাংলাদেশে কত পেয়েছে কিন্তু আমি আপনাদেরকে বলে দিব তার আগে বলে দিচ্ছি এটা কত দিয়ে শেষ হতে যাচ্ছে তবে এখানে কিন্তু প্রত্যেকটা বেরিয়ে সিস্টেম রয়েছে সেটা হল আপনার আইফোন 12 মিনিট তিনটা ভার্সন রয়েছে 64gb মেমোরি আবার প্রেমের ক্ষেত্রে বিস্তারিত রয়েছে যেগুলো আপনি অবশ্যই গুগলে সার্চ করে দেখে নিতে পারেন।

 

iPhone 12 Pro Max Review

 

তবে প্রত্যেকটা ফোনের মডেলের তিন রকম করে প্রাইস করা হয়েছে শুধুমাত্র ইন্টার্নাল মেমোরি প্লাস গ্রামের আপ ডাউন এর ক্ষেত্রে। তবে বাংলাদেশের প্রাইস যদি আসি তাহলে বাংলাদেশে এইটা কত দামে আসবে এখন পর্যন্ত সেটা লঞ্চ করার আগে কিন্তু বলা যাচ্ছে না তবে লঞ্চ করার পরে কিন্তু বাংলাদেশের প্রাইস ডে বলা হবে তবু আমরা আনুমানিক কিছু দাও না।

আপনাদের কে দিয়ে দিয়েছি যে এর মধ্যে থাকার সম্ভাবনা বেশি কিন্তু বাংলাদেশে নির্দিষ্ট পরিমাণে কোন অ্যাপল স্টোরি নেই তাই এখানে 11 স্টোরিতে একেক রকমের দাম আপনি পাবেন যেখানে নির্দিষ্ট পরিমাণে কোন দাম বলা যাচ্ছে না এখানে একটা নিয়ম বলা যাচ্ছে সেটা হলো যে বাঙালিরা বর্তমানে নতুন জিনিস টাকে একটু বেশি প্রাধান্য দেয় তারা।

 

আইফোনের নতুন চমক

যারা নতুন জিনিস মানে প্রথমেই আগে কিনতে চায় তাদের ক্ষেত্রে অবশ্যই যদি বলি তাহলে যারা আমেরিকা থেকে ফোন গুলো আগে নির্দেশে তারা একটু বেশি দামে বিক্রি করতে পারবে এমনকি তার একটু পরে নিয়ে আসতে পারবে তার একটু কম দামে বিক্রি করবে এটা স্বাভাবিক একটি বিষয় তবে যারা প্রথম প্রথম জানবে অবশ্যই তাদের কাছ থেকে বেশি বড়লোক মানুষরা বড়লোক মানুষ তাদের কোনো সমস্যা হবে না যার কারণে তাদের আগে কিনা আগ্রহটা অনেক বেশি থাকবে এমনকি যারা ফেল করবে তাদের ক্ষেত্রে কিন্তু একটু বেশি বিক্রি করতে পারবে তারা তাই বাংলাদেশের দাম নিয়ে আমরা আর কথা বলছি না তো বিআরসি পর্যন্ত ছিল আজকের টপিকঃ আবার নেক্সট কোন টপিকে কথা বলব তোকে’ পর্যন্ত ভালো থাকুন 

Total
1
Shares
Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Previous Post

How To Success On YouTube – ইউটিউবে কম সময়ের মধ্যে সফলতা সম্ভব

Next Post

How to increase Instagram followers 2021 – ফ্রিতে ইন্সটাগ্রাম আইডির ফলোয়ার বাড়ানোর গোপন ট্রিকস

Total
1
Share